Breaking News

ছাতকে পৌর নির্বাচনে প্রথম নারী মেয়র পদে প্রার্থী ন্যান্সি

Print Friendly, PDF & Email

ছাতকে পৌর নির্বাচনে প্রথম
নারী মেয়র পদে প্রার্থী ন্যান্সি
,ছাতক() প্রতিনিধি,
ছাতকে পৌরসভা প্রতিষ্ঠার দীর্ঘ ২৩ বছর পর প্রথমবারের মতো মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে যাচ্ছেন এক নারী প্রার্থী। ৯টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত ১৯৯৭ সালে ৭ সেপ্টেম্বর স্থাপিত হয়েছে। ২০০৮ সালে ১৮ সেপ্টেম্বর ক শ্রেনীতে উন্নীত করা হয় পৌরসভাকে। ছাতক উপজেলা পরিষদের সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, বিএনপির নেত্রী রাশিদা বেগম ন্যান্সি। তার বাবা মরহুম হাবিবুর রহমান (হবি চেয়ারম্যান) ছিলেন নোয়ারাই ইউনিয়নের দীর্ঘদিনের সুনামধন্য চেয়ারম্যান। আগামী ১৬ জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য পৌরসভা নির্বাচনে তিনি বিএনপির মনোনয়ন নিয়ে মেয়র পদে ভোটযুদ্ধে অবতীর্ণ হচ্ছেন।
জানা গেছে,তার প্রার্থিতা নিশ্চিত হওয়ায় তাকে নিয়ে পৌরসভাজুড়েই শুরু হয়েছে নতুন করে ভোটের হিসাব-নিকাশ। ছাতক পৌরসভায় এ পর্যন্ত বিভিন্ন রাজনৈতিক দল থেকে প্রার্থী ছাড়াও অরাজনৈতিক ব্যক্তিরাও মেয়র পদে নির্বাচন করেছেন। কিন্তু ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদ ছাড়া কোনো নারী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেননি মেয়র পদে। এবারই প্রথম মেয়র পদে নারী প্রার্থী হওয়ায় তাকে নিয়ে আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে পৌরসভাকে ঘিরেই। তিনি নির্বাচনে লড়বেন ছাতক পৌরসভায় টানা ৩ বার নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান সরকার দলীয় মেয়র আবুল কালাম চৌধুরীর সঙ্গে। আ’লীীগ ও বিএনপির মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হরে পৌর নিবাচনে।
মেয়র প্রার্থী রাশিদা বেগম ন্যান্সি রাজনীতির পাশাপাশি বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কর্মকান্ডেও জড়িত। সিলেট কমিউনিকেটিভ ইংলিশ ল্যাংগুয়েজ টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন, ছাতকে কার্যকরী কমিটির সহ প্রচার সম্পাদিকা ও প্রয়াস সাংস্কৃতিক সংঘের উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। সিলেট পাল্প এন্ড পেপার মিলস (এসপিপিএম) উচ্চ বিদ্যালয়েও ৪ বছর সুনামের সঙ্গে শিক্ষকতা করেন। শিক্ষাজীবনে ন্যান্সি ১৯৯৩ সালে চন্দ্রনাথ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এস.এস.সি, ১৯৯৫ সালে ছাতক ডিগ্রী কলেজ থেকে এইচ.এস.সি ও ১৯৯৭ সালে একই কলেজ থেকে বি.এ পাস করেন। ২০০০ সালে সিলেটের এমসি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে এম.এ ডিগ্রী অর্জন করেন। ২০০৮ সালে শান্ত মরিয়ম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বি.এড কোর্স সমাপ্ত করেন।
উল্লেখ্য, ২০০৯ সালে ছাতক উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়ে তিনি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছিলেন। ২০১২ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে ১৭ নভেম্বর পযর্ন্ত ছাতক উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বিএনপি ঘরনার রাজনীতিতে সম্পৃক্ত রাশিদা বেগম ন্যান্সি আসন্ন নির্বাচনে একটি আধুনিক পৌরসভা বিনির্মাণের লক্ষে মেয়র পদে লড়তে চায় । একান্ত আলাপচারিতায় রাশিদা বেগম ন্যান্সি জানান, বিএনপির প্রার্থী হয়ে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে ছাতক পৌরসভায় প্রথম মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। এদিকে মেয়র পদে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী। ছাতক পৌরসভায় টানা ৩ বার নির্বাচিত হয়েছেন আবুল কালাম চৌধুরী। ২০০৪ সালের পৌর নির্বাচনে তিনি প্রথমবারের মতো ছাতা প্রতীক নিয়ে পৌর চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। দায়িত্বে ছিলেন ২০১১ সালের ১৬ ফেরুয়ারী পর্যন্ত। ২০১১ সালের নির্বাচনে আবুল কালাম চৌধুরী কাপ-পিরিচ প্রতীক নিয়ে পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হন এবং দায়িত্ব পালন করেন ২০১৬ সালের ৮ ফেরুয়ারী পর্যন্ত। পরবর্তী ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত পৌর নির্বাচনে দলীয় প্রতীক নৌকা নিয়ে তিনি বিজয়ী হন। এ পৌরসভায় একবার পৌর চেয়ারম্যান, দু’বার মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন আবুল কালাম চৌধুরী। বর্তমানেও পৌর মেয়রের দায়িত্বে রয়েছেন তিনি। ছাতক পৌরসভার টানা তিনবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী পৌর শহরের বাগবাড়ী গ্রামের বাসিন্দা। অপরদিকে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী রাশিদা বেগম ন্যান্সি হচ্ছেন ছাতক পৌরসভার সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র রজনু আহমদের সহধর্মিণী এবং ছাতকে বিশিষ্ট শালিশ ব্যাক্তিত্ব সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমানের কন্যা। পৌর শহরের বাগবাড়ী গ্রামের বাসিন্দা ন্যান্সি নিজেও নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হিসাবে কাজ করেছেন।
উল্লেখ্য,৩ ডিসেম্বর নির্বাচন কমিশন সারাদেশে দ্বিতীয় ধাপে ৬১ পৌরসভার নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে। ইসির ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ৬১টি পৌরসভার নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ গত ২০ ডিসেম্বর। মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই ২২ ডিসেম্বর। প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৯ ডিসেম্বর। আর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৬ জানুয়ারি ২১ সালে।

About admin

Check Also

ছাতকে ম‌্যা‌নে‌জিং ক‌মি‌টি গঠন নি‌য়ে দু`প‌ক্ষের ম‌ধ্যে উ‌ত্তেজনা

ছাতকে ম‌্যা‌নে‌জিং ক‌মি‌টি গঠন নি‌য়ে দু`প‌ক্ষের ম‌ধ্যে উ‌ত্তেজনা ছাতক প্রতিনিধিঃ ছাতকে দক্ষিন খুরমা ইউনিয়নের মর্য্যাদ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!